সাদা ভাত শুনতে কতো সহজ, কিন্তু রাঁধতে ...




চাউলের পুষ্টিগুনসহ ভাত রান্না 


অনেকেই বলে চাউল অথবা ভাত রান্না অনেক সহজ যে কেউ রান্না করতে পারে এটা কোন ব্যাপারই না। ভাত তো বেশির ভাগ লোকজনই রান্না করতে পারে, কিন্তু ভাত শুধু রান্না করলেই হয় না, ভাত রান্নারও কিছু নিয়ম আছে তা ঠিকমতে বুঝতে হয়, আবার সব ধরনের ভাত সবাই খেতে পারে না, একেকজন একক রকম ভাত পছন্দ করে থাকে যেমন- নরম ভাত, শক্ত ভাত, হাফ নরম ও বিশেষ করে ঝরঝরে ভাত। 

আরও পড়ুন ঝরঝরে সাদা পোলাও রান্না 

প্রথম নিয়ম: মাড় গালিয়ে ঝরঝরে ভাত রান্না 



যেভাবে তৈরি করবেন:

১) চুলায় পাতিল দিয়ে পানি পরিমাণ মত গরম করে নিন।(চালের চেয়ে কম করে হলেও ৫-৬ গুন পরিমাণ পানি বেশি দিতে হবে।)

২) পানি ভালভাবে গরম হলে অথবা ফুটে আসলে চাল ভালভাবে ধুয়ে পানি ছেকে পাতিলে দিয়ে চালগুলো নেড়ে-চেড়ে দিন(ফুটন্ত পানিতে চাউল দিয়ে রান্না করলে ভাত ঝড়ঝড়ে হয়)। এরপর জ্বাল দিতে থাকুন।

৩) ৮/১০মিনিট পর দেখবেন বুধ বুধ আকারে উপচে উঠছে তখন চুলার আগুন কমিয়ে আরও ৮/১০ মিনিট জ্বাল দিতে থাকুন, মাঝে মাঝে নেড়ে-চেড়ে দিবেন। চাউল উঠিয়ে হাত দিয়ে চাপ দিয়ে দেখবেন সিদ্ধ হয়েছে কিনা যদি হয়ে থাকে তখন কিছুক্ষন উপুর করে রেখে মাড় গালিয়ে ফেলুন।

৪) পাতিল উঠিয়ে ঝাকিয়ে নিয়ে কম আগুনে চুলায় কিছুক্ষন রেখে দিন এরপর নামিয়ে বোল অথবা বড় বাটিতে ঢেলে দিন।



দ্বিতীয় নিয়ম: মাড় গালিয়ে সাদা ভাত ঝরঝরে ভাত রান্না


যেভাবে তৈরি করবেন:

১) চুলায় পাতিল দিয়ে পানি পরিমাণ মত গরম করে নিন।(চালের চেয়ে কম করে হলেও ৫-৬ গুন পরিমাণ পানি বেশি দিতে হবে।) ২/৩ চামচ সয়াবিন তেল দিলে ভাত আঠালো হবে না ও লেবুর রস ২/৩ চামচ দিলে এতে ভাত আরও সাদা হবে।

২) পানি ভালভাবে গরম হয়ে ফুটে আসলে চাল ভালভাবে ধুয়ে পানি ছেকে পাতিলে দিয়ে চালগুলো নেড়ে-চেড়ে দিন। 

৩) ৮/১০মিনিট পর দেখবেন বুধ বুধ আকারে উপচে উঠছে তখন চুলার আগুন কমিয়ে আরও ৮/১০ মিনিট জ্বাল দিতে থাকুন, মাঝে মাঝে নেড়ে-চেড়ে দিবেন। চাউল উঠিয়ে হাত দিয়ে চাপ দিয়ে দেখবেন সিদ্ধ হয়েছে কিনা যদি হয়ে থাকে তখন কিছুক্ষন উপুর করে রেখে মাড় গালিয়ে ফেলুন।


৪) পাতিল উঠিয়ে ঝাকিয়ে নিন মৃঁদু আচে চুলায় ৪/৫মিনিট রেখে এরপর নামিয়ে বোল অথবা বড় বাটিতে ঢেলে দিন। 

আরও পড়ুন সাদা ভাতের উপকারিতা ও গুনাগুন 

তৃতীয় নিয়ম: সাদা ঝরঝরে বসা ভাত রান্না


যেভাবে তৈরি করবেন:


১) চুলায় পাতিল দিয়ে পানি পরিমাণ মত গরম করে নিন।

২) চাল ভালভাবে ধুয়ে পানি ছেকে পাতিলে দিয়ে চালগুলো নেড়ে-চেড়ে দিন।(চালের উপরে আগুলের তিন কর অথবা ২-আড়াই ইঞ্চি পরিমাণ পানি দিবেন।)

৩) ৮/১০মিনিট পর দেখবেন বুধ বুধ আকারে উপচে উঠছে তখন চুলার আগুন কমিয়ে আরও ৮/১০ মিনিট জ্বাল দিতে থাকুন, মাঝে মাঝে নেড়ে-চেড়ে দিবেন। 

৪) চাউল উঠিয়ে হাত দিয়ে চাপ দিয়ে দেখবেন সিদ্ধ হয়েছে কিনা যদি হয়ে থাকে, পাতিল উঠিয়ে ঝাকিয়ে নিন এরপর বোল অথবা বড় বাটিতে ঢেলে দিন, আর না হয়ে থাকলে লোহার তাওয়া গরম করে ৭/৮ মিনিট বসিয়ে রাখুন। এরপর নামিয়ে পরিবেশন করুন। 



চতুথ নিয়ম: সাদা ঝরঝরে কুকারে বসা ভাত রান্না 


যেভাবে তৈরি করবেন:


১) কুকারে ভিতর থেকে বাটি বের করে সেখানে চাল ধুয়ে, চালের পানি দিগুন দিয়ে অথবা চালের উপরে আগুলের তিন কর অথবা ২-আড়াই ইঞ্চি পরিমাণ পানি দিবেন। আবার অনেক কুকারে ভিতর নিয়ম লেখা থাকে চাল ও পানি দেওয়ার আলাদা বাটি থাকে।

২) বাটির নীচে ও চারদিকে পানি অথবা অন্য কিছু লেগে থাকলে তা মুছে কুকারে ভিতর বসিয়ে দিয়ে ডাকনা লাগিয়ে বিদ্যুত চালু করে দিন, ১৫ থেকে ২০ মিনিটের মধ্যে ভাত রান্না হয়ে যাবে। এরপর নামিয়ে পরিবেশন করুন । 


ভাতের সাথে আমরা মাছ, মাংস, ডিম, সবজি ও বিভিন্ন ধরনের কারি বা যে কোন কিছু দিয়ে খেতে পারেন। 

লেখক/অবদানকারী: অবদানকারী পৃষ্ঠাটি পড়ুন 

বিজ্ঞাপন


আমাদের ফেসবুক পেজ @NURStudioBD 

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল @Cooking,Health,&Beauty 
 
আমাদের লাইফস্টাইল বিষয়ক ইউটিউব চ্যানেল AUHStyle


আরও একটি সম্পর্কিত পোস্ট পড়ুন ঝরঝরে ভাত রান্নার কৌশল

আরও একটি সম্পর্কিত পোস্ট পড়ুন ভাত রান্নার সহজ রেসিপি 

মন্তব্য

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন