প্রাথমিক চিকিৎসা: আগুনে বা তেলে পোড়ার পর করণীয়


প্রাথমিক চিকিৎসা: আগুনে বা তেলে পোড়ার পর করণীয়


রান্নার সময় ছোটখাটো আগুনেপোড়া অথবা তেলেপোড়ার পর প্রাথমিক অবস্থায় যা করণীয় তা নিন্মে উল্লেখ করা হল:


১) আগুনে বা তেলে পুড়ে গেলে প্রথমে সাথে সাথে ক্ষতস্থানটি ঠান্ঠা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। যদি ফ্রিজে ঠান্ঠা পানি না থাকে তাহলে সাধারণ পরিষ্কার পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তবে ঠান্ঠা পানিই ব্যবহার করাতে ফোসকা পড়া থেকে ভাল কাজ করবে।


ক্ষতস্থানটিতে ঠান্ডা পানি ঢালুন
ক্ষতস্থানটিতে ঠান্ডা পানি ঢালুন

২) ক্ষতস্থানটিতে কোনো প্রকার গরম জাতীয় ছেক বা গরম পানি লাগাবেন না। ক্ষতস্থানটি ভেজানো থেকে উঠানোর পর হাল্কাভাবে নরম কাপড় দিয়ে আলত করে পানি মুছে ফেলবেন এবং শুকিয়ে গেলে ঔষধ লাগিয়ে ঢেকে রাখুন যাতে ধুলোবালি না লাগে।
৩) কাঁচা বা শুকনা হলুদ পেষ্ট করে ক্ষতস্থানে লাগানো হলে তাড়াতাড়ি ভাল হয়ে যায়। হলুদ দুধের সাথে মিশিয়ে পান করলে দ্রত ব্যাথা কমিয়ে দেয় এবং শুকিয়ে আসে।


ক্ষতস্থানে হলুদ পেষ্ট লাগান
ক্ষতস্থানে হলুদ পেষ্ট লাগান

৪) ফোস্কা পড়ে গেলে গলাবেন না এবং জায়গাটি শুকনো রাখুন। লক্ষ রাখবেন মশা/মাছি ও ধুলাবালি বা যেকোন ধরনের ময়লা যেন না লাগে। রোজ একবার হলেও ক্ষতস্থানটি পরিষ্কার করুন এতে ইনফেকশন থেকে হওয়া থেকে দুরে থাকবে।



৫) ক্ষতস্থানে মধু লাগালে ইনফেকশন হয় না বরং তাড়াতাড়ি শুকাতে সাহায্য করে। এছাড়াও দূর্বা ঘাস তুলে ধুয়ে পিষে বা চটকিয়ে লাগিয়ে দিলে ভাল কাজ করে।


মধু ইনফেকশন থেকে দুরে রাখে
মধু ইনফেকশন থেকে দুরে রাখে

৬) গাঁদা ফুলের পাতা, কৈলাশ পাতা, কলাগাছের কচিপাতা এছাড়াও আরও কিছু ঔষধি গাছ আছে এসবের পাতা তুলে ভাল করে ধুয়ে পিষে পেষ্ট তৈরি করে লাগিয়ে এরপর হাল্কা করে বেঁধে রাখুন।
*** বেশী পুড়ে থাকলে দ্রুত রোগীকে কাছে-ধারে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাবেন অথবা হাসপাতাল নিয়ে যাবেন। ঘরে ঔষধ না থাকলে প্রাথমিকভাবে টুথপেষ্ট ঘন করে কিছুক্ষন লাগাতে পারেন।



---------------------------------------------------------

আমাদের ফেসবুক পেজ @NURStudioBD 

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল @Cooking, Health, & Beauty  

মন্তব্যসমূহ